Xiaomi Poco X2 Full Review 2020 (বাংলা রিভিউ, স্পেসিফিকেশন)

10
837
Xiaomi Poco X2 Full Review 2020
Xiaomi Poco X2 Full Review 2020

2018 সালের অগাস্টে Poco F1 -এর হাত ধরে স্মার্টফোন বাজারে আত্মপ্রকাশ করেছিল Xiaomi-র সাব-ব্র্যান্ড Poco। সম্প্রতি Xiaomi -র ছত্রছায়া থেকে বেরিয়ে পৃথক ব্র্যান্ডের তকমা পেয়েছে Poco। স্বাধীন ব্র্যান্ডের তকমা পাওয়ার মাত্র এক মাসের মধ্যে কোম্পানির  দ্বিতীয় স্মার্টফোন Poco X2 লঞ্চ হল। Poco F1-এ সাধ্যের মধ্যে ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট (Snapdragon 845) ব্যবহার করে গ্রাহকের মন জয় করেছিল কোম্পানিটি। যদিও Poco X2 তে সেই সমীকরণ কিছুটা বদলেছে। Poco-র লেটেস্ট ফোনে মিডরেঞ্জ Snapdragon 730G চিপসেট ব্যবহার হলেও এই ফোনে থাকছে দুর্দান্ত ডিসপ্লে ও ক্যামেরা।

Xiaomi Poco X2 ডিজাইন

Poco F1-এ সাধারণ প্লাস্টিক ডিজাইন ব্যবহার হয়েছিল। Poco X2 তে সেই ফর্মুলা বদলেছে চিনের কোম্পানিটি। নতুন দোনে থাকছে উজ্জ্বল ও রঙিন গ্লাস ডিজাইন। ফোনের পিছনে Poco ব্র্যান্ডিং ছাড়াও থাকছে বৃত্তাকার ক্যামেরা মডিউল। সেখানে মোট চারটি ক্যামেরা থাকছে। সঙ্গে থাকছে এলইডি ফ্ল্যাশ।

ফোনের সামনে রয়েছে একটি 6.67 ইঞ্চি হোল-পাঞ্চ ডিসপ্লে। এই ফোনের ডিসপ্লের নীচে ডুয়াল সেলফি ক্যামেরা থাকবে। Galaxu S10 Plus ফোনে একই ডিজাইনের ক্যামেরা ব্যবহার হয়েছিল।এই ফোনে পাশে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের নীচে রয়েছে পাওয়ার বাটন। ফোনের ডান দিকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকার কারণে বাঁ হাতে ফোন আনলক করতে অসুবিধা হতে পারে। পাওয়ার বাটনের উপরের থাকছে ভলিউম বাটন।ফোনের উপরে রয়েছে ইনফ্রারেড ব্লাস্টার। ফোনের বাঁ দিকে রয়েছে হাইব্রিড সিম স্লট। এখানে দুটি সিম কার্ড অথবা একটি সিম কার্ড ও একটি মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

কোম্পানি জানিয়েছে X2 তে Gorilla Glass 5 ব্যবহার হয়েছে। ফোনের সঙ্গেই একটি ট্রান্সপারেন্ট কেস দেবে কোম্পানি। এছাড়াও বাক্সের মধ্যে থাকবে একটি সিম ইজেক্টর পিন, 27W ফাস্ট চার্জর ও একটি USB Type-C কেবেল।

Xiaomi Poco X2 স্পেসিফিকেশন

Xiaomi Poco X2 Atlantis Blue
Xiaomi Poco X2 Atlantis Blue

ডুয়াল সিম Poco X2-তে Android 10 অপারেটিং সিস্টেমের উপরে কোম্পানির MIUI 11 স্কিন চলবে। এই ফোনে রয়েছে একটি 6.67 ইঞ্চি ডিসপ্লে। 120Hz রিফ্রেশ রেটের এই ডিসপ্লেতে থাকছে হোল-পাঞ্চ ডিজাইন। ফোনের ভিতরে রয়েছে Snapdragon 730G চিপসেট। সঙ্গে থাকছে 8GB পর্যন্ত RAM ও 256GB পর্যন্ত স্টোরেজ।কানেক্টিভিটির জন্য এই ফোনে রয়েছে 4G VoLTE, Wi-Fi 802.11ac, Bluetooth, GPS/ A-GPS, USB Type-C ও 3.5 মিমি অডিও জ্যাক। Poco X2-তে থাকছে 4,500 mAh ব্যাটারি। সাথে থাকছে 27W ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট। ফোনের পিছনে থাকছে গ্রেডিয়েন্ট ফিনিশ।

Xiaomi Poco X2 পারফর্মেন্স ও ব্যাটারি লাইফ

Snapdragon 730G চিপসেট ব্যবহারের জন্য কখনই স্লো মনে হবে না Poco X2। রিভিউয়ের সময় এক-দুইবার ইউজার ইন্টারফেসে ল্যাগ দেখা গিয়েছিল। যদিও মুহূর্তে তা ঠিক হয়ে গিয়েছে। এই ফোন রিভিউয়ের সময় আমাদের হাতে ছিল একটি 8GB RAM ভেরিয়েন্ট। এই ফোন ব্যবহারের সময় ডিসপ্লের সব প্রান্তে আঙুল পৌঁছতে সমস্যা হয়েছে। গেম খেলা ও ক্যামেরা ব্যবহারের সময় এই ফোন সামান্য গরম হয়েছে।Poco X2 ডিসপ্লেতে দুর্দান্ত ভিউইং অ্যাঙ্গেল পাওয়া যাবে। যদিও ক্যামেরার উপরে হোল-পাঞ্চ ডিজাইন আপনাকে বিরক্ত করতে পারে। হোল-পাঞ্চ কাট আউটের চারপাশে ব্যাকলাইটে অসামঞ্জস্য দেখা গিয়েছে। এই ফোনের নীচে একটি মাত্র স্পিকার থাকছে। যদিও এই স্পিকারের আওয়াজ যথেষ্ট তীব্র।

AnTuTu বেঞ্চমার্ক টেস্টিংয়ে 2,80,912 স্কোর করেছে Poco X2। Geekbench 5 বেঞ্চমার্ক পরীক্ষায় সিঙ্গেল-কোর টেস্টে 548 ও মাল্টি-কোরে 1,759 পেয়েছে এই ফোন।ডিফল্ট মোডে হাই প্রিসেটে PUBG Mobile খেলা গিয়েছে। এই গেম খেলার সময় কোন ল্যাগ চোখে পড়েনি। Asphalt 9: Legends খেলতেও কোন সমস্যা হয়নি। এই গেমে দুর্দান্ত ভিসুয়াল এফেক্ট দেখা গিয়েছে।ব্যাটারি বিভাগেও দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে X2। এক চার্জে গোটা দিন এই ফোন ব্যবহার করা যাবে। আমাদের এইচডি ভিডিও লুপ টেস্টে 13 ঘণ্টা 43 মিনিট চলেছে Poco X2।

Xiaomi Poco X2 ক্যামেরা

Poco X2-তে মোট ছ’টা ব্যামেরা রয়েছে। এই ফোনের সামনে দুটো ও পিছনে চারটি ক্যামেরা ব্যবহার হয়েছে। Poco X2-র পিছনে বৃত্তাকার ক্যামেরা মডিউলে থাকছে চারটি ক্যামেরা। এই ফোনের পিছনের ক্যামেরায় থাকছে 64 মেগাপিক্সেল Sony IMX686 প্রাইমারি সেন্সর। সঙ্গে থাকছে একটি 5 মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা 2 মেগাপিক্সেল ডেপ্ত সেন্সর আর 8 মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা। Poco X2-র ডুয়াল সেলফি ক্যামেরায় 20 মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর থাকবে। সাথে থাকবে একটি 2 মেগাপিক্সেল ডেপ্ত সেন্সর। 64-megapixel, Pro, Portait, Night, Short Video ও Slow Motion মোডে এই ক্যামেরায় ছবি তোলা যাবে।

Xiaomi Poco X2 Phoenix Red
Xiaomi Poco X2 Phoenix Red

ছবি তোলার সময় প্রাইমারি ক্যামেরায় ফোকাস লক করতে কয়েকবার সমস্যা হয়েছে। এই ক্যামেরায় তোলা ছবিতে ভালো এক্সপোজার ও ডিটেল পাওয়া যাবে। মিলবে দুর্দান্ত শ্যালো ডেপ্ত-অফ-ফিল্ড এফেক্ট। যদিও দিনের আলোতে তোলা ছবিতেও শ্যাডো এরিয়ায় নয়েজ দেখা গিয়েছে।ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরায় খুব ভালো ছবি আশা করবেন না। ম্যাক্রো ক্যামেরায় বেশিরভাগ ছবি ওভার-এক্সপোজড মনে হবে। যদিও সাবজেক্টের উপর ছায়া পড়লে ম্যাক্রো ছবিতে উন্নতি দেখা গিয়েছে।পোট্রেট ছবিতে ব্লার নিয়ন্ত্রণের উপায় থাকছে। যদিও দিনের আলোতে ফ্রন্ট ক্যামেরার ব্লার কৃত্রিম মনে হবে। বিউটিফিকেশন মোড বন্ধ করতেও নাজেহাল হতে পারেন।

বাজারে সাফল্যের একমাত্র মন্ত্র জলের দামে দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশন। আর সেই পথে হেঁটেই বিগত কয়েক বছরে ভারতে সাফল্য পেয়েছে Poco। Poco F1-এর মতো স্পেসিফিকেশন না থাকলেও প্রতিযোগীদের দামে হারিয়ে দেবে Poco X2। কুড়ি হাজারের কম দামে ভারতের বাজারে রয়েছে Realme X2, Redmi K20, Oppo F15, Vivo S1 Pro এর মতো ফোনগুলি। Poco X2 -এর দামের পাশে এই সব ফোনকেই ফিকে লাগবে।

10 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here